1. aleyaa31a16@gmail.com : Aleyaa 31 : Aleyaa 31
  2. sajedurrahmanshohan@gmail.com : Sajedur Shohan : Sajedur Shohan
  3. sejanahmed017@gmail.com : Sijan Sarkar : Sijan Sarkar
  4. sohan75632@gmail.com : Sohanur Rahman : Sohanur Rahman
  5. multicare.net@gmail.com : নর্থ এক্সপ্রেস :
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৭:০৭ অপরাহ্ন

কর্মমুখি শিক্ষাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন শেখ হাসিনা -পলক

সৌরভ সোহরাব সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৫ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৫৪ বার পড়া হয়েছে

 

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, কাগজ কলমে শিক্ষায় যারা শিক্ষিত হচ্ছেন তাদের অনেকেই বেকার জীবন যাপন করছেন। কিন্তু কর্মমুখি শিক্ষায় যারা শিক্ষিত হচ্ছেন তারা শিক্ষা জীবন শেষ করে খুব সহজেই কর্মজীবনে নিজেকে মেলে ধরতে পারছেন। তাই প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্মমুখি শিক্ষাকে অত্যান্ত গুরুত্ব দিচ্ছেন।

বৃহষ্পতিবার (৫ অক্টোবর) বেলা ১১ টায় নাটোরের সিংড়ায় শিক্ষা প্রকৌশলীর আওতায় জামিলা ফয়েজ ইনস্টিটিউট এর ৪ তলা ভিত বিশিষ্ট ১-তলা একাডেমিক ভবনের শুভ উদ্বোধ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী পলক আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করতে চাই, আমাদের এই সিংড়াকে আজ আমরা শিক্ষা নগরীতে পরিণত করতে পেরেছি। ১৯৯৬ সালে যতগুলো কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আমরা প্রতিষ্ঠা করেছিলাম, তার জন্য এখানে অনেক শিক্ষকের কর্মসংস্থান হয়েছে, হাজার হাজার শিক্ষার্থী কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হতে পেরেছে এবং শিক্ষা গ্রহণ শেষে তারা কর্মে নিয়োগ পাওয়ার সুযোগ পেয়েছে।
প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, কর্মমুখী শিক্ষাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত গুরুত্ব দেন বলেই তিনি ৯৬ থেকে ২০০১ সালে আমাদের কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে সিংড়াসহ সমগ্র উত্তরবঙ্গে শতশত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেছেন এবং শিক্ষকদের বেতনভাতার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। বর্তমান যুগের চাহিদা পূরণের জন্য আমাদের শিক্ষা এবং দক্ষতা অর্জন করতে হবে।
বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে পাঁচটি মৌলিক চাহিদাকে সংবিধানে সংরক্ষিত করে গিয়েছিলেন, তার মধ্যে শিক্ষা ছিলো অন্যতম। অর্থাৎ, মানুষের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসাকে মৌলিক চাহিদা হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। সিংড়াতে প্রায় ২৪০০ পরিবার ছিলো যাদের কোনো আশ্রয় ছিলো না, ঘর ছিলো না, থাকার কোন জায়গা ছিলো না। তাদের সবাইকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা পাকা ঘর করে দিয়েছেন।

জামিলা ফয়েজ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর পরিচালনা পরিষদের সভাপতি এডভোকেট সাইদুর রহমান সৈকতের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, জামিলা ফয়েজ পলিটেকনিক ইনস্টিউট এর প্রতিষ্ঠাতা মোঃ আবুল কালাম আজাদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট শেখ ওহিদুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ লুৎফুল হাবিব রুবেল, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক রুহুল আমিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সজিব ইসলাম জুয়েল সহ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, অবিভাবক, ছাত্রছাত্রী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি।
আলোচনা শেষে দোয়া পরিচালনা করেন সিংড়া বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ আলী আকবর।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© নর্থ এক্সপ্রেস নিউজ কর্তৃক সকল স্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট