1. aleyaa31a16@gmail.com : Aleyaa 31 : Aleyaa 31
  2. sajedurrahmanshohan@gmail.com : Sajedur Shohan : Sajedur Shohan
  3. sejanahmed017@gmail.com : Sijan Sarkar : Sijan Sarkar
  4. sohan75632@gmail.com : Sohanur Rahman : Sohanur Rahman
  5. multicare.net@gmail.com : নর্থ এক্সপ্রেস :
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৬:২৫ অপরাহ্ন

পল্লী উন্নয়ন একাডেমী বগুড়া’র ৪৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে।

রাশেদুল হক
  • প্রকাশিত: সোমবার, ১৯ জুন, ২০২৩
  • ৫৮ বার পড়া হয়েছে

পল্লী উন্নয়ন একাডেমী বগুড়া’র ৪৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। ১৯ জুন সোমবার সকাল ৯ টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও পল্লী উন্নয়ন একাডেমী বগুড়া’র প্রতিষ্ঠাতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন আরডিএ, বগুড়ার মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব)  মো: খুরশিদ ইকবাল রেজভী ও পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ অতিরিক্ত  সচিব (প্রশাসন ও বাজেট) মোঃ শাহাদাৎ হোসাইন ।

পরে মহাপরিচালক মা: খুরশিদ ইকবাল রেজভীর  সভাপতিত্বে  “স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়ার অর্জন ও সম্ভাবনা” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের অতিরিক্ত  সচিব (প্রশাসন ও বাজেট) মোঃ শাহাদাৎ হোসাইন। একাডেমীর সাবেক ও বর্তমান অনুষদ সদস্য, মন্ত্রনালয়ের প্রতিনিধি, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের অতিথিবৃন্দ উক্ত সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আরডিএ বগুড়ার যুগ্ম পরিচালক ড. মোঃ শফিকুর রশিদ । মুখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন একাডেমীর সাবেক ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক ড. এম এ মতিন ও  সাবেক পরিচালক ড. একেএম জাকারিয়া। আলোচনায় বক্তারা একাডেমীর প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আজ অবধি বিভিন্ন কর্মকান্ড, অর্জন, বিভিন্ন ব্যক্তির অবদান নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, পল্লী উন্নয়ন একাডেমী বগুড়ার বিভিন্ন গবেষণার মাধ্যমে একদিকে গ্রামীণ সমস্যাসমূহ যেমন নিরূপণ হচ্ছে তেমনি এর উদ্ভাবিত মডেল গুলোর মাধ্যমে পল্লী উন্নয়ন একাডেমী আজ “সেন্টার অব এক্সিলেন্স” হিসেবে গড়ে উঠেছে। সেমিনারে সভাপতির বক্তব্যে মহাপরিচালক মহোদয় আরো বলেন পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়ার কর্মকান্ড সামনে আরো বেগবান হবে যা এসডিজি’র লক্ষ্যমাত্রা পূরণের সাথে সাথে বাংলাদেশকে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ইতিবাচক সুবিধা  গ্রহণের পাশাপাশি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন ২০৪১ সালের “স্মার্ট বাংলাদেশ” বিনির্মাণে সরাসরি অবদান রাখবে। একাডেমি   প্রতিষ্ঠার পর থেকে  থেকে আজ প্রায় অর্ধ শতবর্ষ  ধরে  প্রশিক্ষণ, গবেষণা,  প্রায়োগিক গবেষণা ও পরামর্শ প্রদানের পাশাপাশি পল্লী এলাকায় দারিদ্র্য বিমোচন ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সার্বিক জীবনমান  উন্নয়নে সাফল্যের সাথে কাজ করে যাচ্ছে পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়া।
উল্লেখ্য, শেরপুর-ধুনট এলাকার সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য মরহুম আমান উল্লাহ খানের প্রচেষ্টা ও অনুরোধে  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতাত্তোর দেশ পুনর্গঠন এবং ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে ১৯৭৪ সালের ১৯ জুন প্রথম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার আওতায় গ্রামাঞ্চলের উন্নয়নের জন্য প্রশিক্ষণ ও গবেষণা ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়া প্রতিষ্ঠা করেন। পরবর্তীতে ১৯৯০ সালে প্রনীত আইন দ্বারা পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়া একটি জাতীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© নর্থ এক্সপ্রেস নিউজ কর্তৃক সকল স্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট